January 17, 2021, 12:36 pm

নোটিশ
ব্রাহ্মণবাড়িয়া নিউজ ২৪ ডটকম এ আপনাদেরকে স্বাগতম:: ব্রাহ্মণবাড়িয়া নিউজ ২৪ ডটকম এ প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন, যোগাযোগ- মোঃ নাজিম উল্লাহ নাজু, সম্পাদক ও প্রকাশক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া নিউজ ২৪ ডটকম, কাজীপাড়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। মোবাইলঃ 01732877149, নির্বাহী সম্পাদক, আরাফাত আহমেদ, মোবাইলঃ 01916608000
আমি চাই প্রকৃত সত্য ঘটনা সবাই জানুক – ফারজানা সোনিয়া 

আমি চাই প্রকৃত সত্য ঘটনা সবাই জানুক – ফারজানা সোনিয়া 

অবশেষে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের নেতা আবদুল হান্নান রতনের করা হত্যা চেষ্টা মামলা হতে জামিন পেয়েছেন সাবেক স্ত্রী ফারজানা হোসেন সোনিয়া। এর আগে গত ২২ ডিসেম্বর সোনিয়া কানাডা থেকে দেশে ফেরার পর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ইমিগ্রেশন পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরের শ্রীরামপুরে গ্রামের বাড়ি হওয়ায় ওই থানা পুলিশের কাছে তাকে সোপর্দ করা হয়।

জামিনের পর ফারজানা হোসেন সোনিয়া আমাদের প্রতিবেদকের মুখোমুখি হয়েছিলেন। এ সময় তাকে শারিরিক ও মানসিকভাবে বিধ্বস্ত মনে হয়।

সোনিয়া জানান, রতন তার অর্থের প্রভাব খাটিয়ে বিভিন্ন ভাবে আমাকে হয়রানি করছে। রতন ২০১৬ সালে পহেলা মার্চ রাতে রাজধানীর গুলশানে আমার বিরুদ্ধে একটি হত্যা চেষ্টার মিথ্যা মামলা দায়ের করে। আমি ২০১৬ সালের ৮ অক্টোবর দেশ থেকে কানাডা যাই। তখনও আমার বিরুদ্ধে কোন ওয়ারেন্ট ছিল না। পরে রতন অনৈতিক উপায়ে ওয়ারেন্ট ইস্যু করে। আমার কষ্ট হচ্ছে আমি কিচ্ছু না করে বিভিন্ন ভাবে হয়রানি ও মিডিয়া ট্রায়ালের স্বীকার হচ্ছি। অথচ যে লোকটা এত অন্যায় অবিচার করছে সে তার অবৈধ অর্থের জোরে দিব্বি ঘুরে বেড়াচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, আমার বাবা ভীষণ অসুস্থ। বাবাকে দেখতে এবং রতনের করা মিথ্যা মামলায় হাজিরা দিতে দেশে এসেছিলাম। প্রায় ২৩ ঘন্টা প্লেন জার্নি করে আসার পর বাংলাদেশ এয়ারপোর্টে আমাকে ৮/৯ ঘন্টা বসিয়ে রাখলো। পরে সেখান থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর থানার পুলিশ গিয়ে নিয়ে আসলো। থানায় সারারাত বসে থাকার পর কোর্ট থেকে আমাকে হাজতে পাঠাল। এই যে বিনা অপরাধে বিভিন্ন ভাবে আমাকে নির্যাতন করা হচ্ছে এর কি কোন বিচার নেই?

বিভিন্ন সময়ে রতন মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে আইন অপব্যবহার ও পত্র পত্রিকার মাধ্যমে আমাকে হয়রানি করেছে, করে যাচ্ছে। এতোদিন চুপ করে সব সহ্য করেছি। আমি চাই রতনের অপকর্ম ও প্রকৃত সত্য ঘটনা সবাই জানুক।

ফারজানা হোসেন সোনিয়ার বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরের শ্রীরামপুরে। ১৯৯৮ সালে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আশুগঞ্জ থানার দুর্গাপুর ইউনিয়নের আব্দুল হান্নান রতনের সাথে তার বিয়ে হয়। সোনিয়ার অভিযোগ বিয়ের পর থেকেই গত ২২ বছর মানসিক শারিরীক ভাবে প্রতিনিয়ত অত্যাচার ও নির্যাতনের শিকার হয়েছেন আব্দুল হানান রতনের দ্বারা।

ক্রমাগত নির্যাতনের ফলে একসময় তিনি আত্মহত্যার পথ বেঁচে নিতে বাধ্য হয়েছিলেন।

চলবে…

 

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2018 Copyright @ brahmanbarianews24.com